bgisp@bbs.gov.bd     +88-02-8181426

তথ্যের ঘাটতি পূরণে চালু হলো জিআইএস প্ল্যাটফর্ম ওয়েবসাইট

×

মঙ্গলবার (২৮ মে) রাজধানীর আগাঁরগাওয়ে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ভবনে প্রধান অতিথি হিসেবে এই প্ল্যাটফর্মের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন পরিসংখ্যান ও তথ্য ব্যবস্থাপনা বিভাগের সচিব সৌরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী। সৌরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী বলেন, টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) বাস্তবায়নে এই জিআইএস প্ল্যাটফর্ম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে। জিআইএস কার্যক্রম পরিচালনাকারী সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোর সঙ্গে সমন্বয় সাধন করা গেলে একে অন্যের কাজ সম্পর্কে পরিষ্কার ধারণা পাবে। সেই সঙ্গে নিজেদের মধ্যে তথ্য-উপাত্ত আদান-প্রদান করে জাতীয় প্রয়োজনে সমন্বিত উদ্যোগ নিতে পারবে। পরিসংখ্যান ব্যুরোর ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক মোহাম্মদ তাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন অতিরিক্ত সচিব বিকাশ কুমার দাস ও মাহমুদা আক্তার। অতিথি ছিলেন ইউএনএফপিএ’র ডেপুটি রিপ্রেজেন্টটিভ আইকো নারিতা। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন স্ট্রেনদেনিং স্ট্যাটিসটিক্যাল ক্যাপাসিটি অব বিবিএস ফর কালেকটিং ডাটা অন পপুলেশন অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট প্রকল্পের পরিচালক ও সেন্সাস উইংয়ের পরিচালক মো. জাহিদুল হক সরদার। অনুষ্ঠানে জানানো হয়, বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরোর উদ্যোগে টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট বাস্তবায়নের জন্য বিশ্বের অন্য দেশগুলোর মতো জিও স্প্যাশিয়াল ডাটাবেজের সঙ্গে পরিসংখ্যানের সমন্বয়ের মাধ্যমে বাংলাদেশের জিআইএস ব্যবহারকারী বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি সংস্থার সমন্বয়ে বাংলাদেশ জিওগ্রাফিক ইনফরমেশন সিস্টেম প্ল্যাটফর্ম (বিজিআইএসপি) গঠন করা হয়েছে। জাহিদুল হক সরদার জানান, এতদিন বিভিন্ন সংস্থা পরিচালিত জিআইএস কার্যক্রমে সমন্বয়হীনতার কারণে দ্বৈততা সৃষ্টির পাশাপাশি অর্থ ও সময়ের অপচয় হচ্ছিল। ফলে জিআইএস কেন্দ্রিক কাঙ্ক্ষিত উন্নয়ন থেকে দেশ ও জাতি বঞ্চিত হচ্ছিল। ফলে জিআইএস কার্যক্রমে সম্পৃক্ত সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় বিভাগ বা সংস্থা এবং বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে জিআইএস কার্যক্রমের সমন্বয় সাধন করা জরুরি হয়ে দাঁড়িয়েছিল। জাহিদুল জানান, বিজিআইএসপি প্ল্যাটফর্মে প্রতিষ্ঠানের সংখ্যা ৩৭টি এবং সদস্যের সংখ্যা ৩৯টি। এটি পরিচালানার মাধ্যমে ডাটা গ্যাপ দূর করা যাবে এবং এক সংস্থা অন্য সংস্থার ডাটা ব্যবহার করে উপকৃত হতে পারবে। সারাবাংলা/জেজে/টিআর